SHARE

ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে বলেছেন, ইউকে কখনও চায় না যে বর্তমান ব্রিটেনের অভিবাসী কোনো ইউরোপীয় নাগরিক দেশ ত্যাগ করুক। ব্রেক্সিটের পরও একজন বৈধ অভিবাসী, যিনি ইইউ নাগরিক তিনি একজন ব্রিটিশ নাগরিকের সমান সব ধরনের অধিকার পাবেন। যাতে করে তারা ব্রেক্সিট এর পরেও শিক্ষা, চিকিৎসা সেবা এবং অন্যান্য সুযোগ সুবিধা পেতে পারে।

ব্রাসেলসে ইউরোপীয় কাউন্সিলের সম্মেলনে এসব কথা বলেন তেরেসা মে।

তিনি আশা করেন, এই ব্যবস্থা পারস্পরিক হবে। কেউ কোনো ধরনের কষ্টকর পরিস্থিতির মুখোমুখি হবে না।

বর্তমানে ব্রিটেনে ৩০ লাখ ২০ হাজার ইইউ নাগরিক রয়েছেন। যাদের অনেকের মনে ভয় রয়েছে যে তাদেরকে হয়তবা ফেরত পাঠানো হবে।

তেরেসা মে জোর দিয়ে বলেন, দেশটি চায় না কেউ সেখান থেকে চলে যাক বা কারো পরিবার দুভাগ হয়ে যাক।

এদিকে তার এই প্রস্তাবে সতর্ক মন্তব্য করতে দেখা গেছে কয়েকজন বিশ্ব নেতাকে।

জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গোলা মেরকেল এটাকে ‘একটা ভাল শুরু’ এই বলে বর্ণনা করেছেন। তবে তিনি বলেছেন ব্রেক্সিটকে ঘিরে অনেক ইস্যু রয়েছে যেগুলো সমাধান করতে হবে।

প্রসঙ্গত, ইইউ থেকে বের হয়ে যাওয়ার জন্য ইউকের হাতে ২০১৯ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত সময় রয়েছে। সূত্র: বিবিসি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here