SHARE
বর্ষবরণ
বর্ষবরণ

আজ পহেলা বৈশাখ। বাংলা নববর্ষ। গোটা বাঙালি জাতির মতো ক্রীড়াঙ্গনের মানুষেরাও স্বাগত জানাবেন বাংলা নববর্ষকে। এখানে তিনজন ক্রীড়াবিদ পহেলা বৈশাখ নিয়ে তাদের অনুভূতি জানিয়েছেন-
মাহফুজা আক্তার শিলা, স্বর্ণজয়ী সাঁতারু
সামনেই বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সাঁতার প্রতিযোগিতা। বেশ কয়েকটি দেশের নামি সাঁতারুরা অংশ নেবেন। নিজেদের দেশে এই আসরে ভালো করার লক্ষ্যে প্রতিদিন দু’বেলা অনুশীলন করছি। দিনের অধিকাংশ সময় মিরপুর সুইমিং কমপ্লেক্সে কেটে যায়। অনুশীলনের পর যেটুকু সময় পাই, তা পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কাটাই। পহেলা বৈশাখ বাঙালির জীবনে বড় একটি উৎসব। তাই বৈশাখকে সামনে রেখে আমি শাড়ি কিনেছি। শাড়ির সঙ্গে মিল রেখে জুয়েলারি কিনেছি। নতুন সংসার। আমি ও রনি অনুশীলনের পর সময় পেলে ঘুরতে বের হব। যদি দিনে সময় না পাই, তাহলে রাতে ঘুরব।
রোকেয়া সুলতানা সাথী, রুপাজয়ী ভারোত্তোলক
উজবেকিস্তানে একটি টুর্নামেন্টে অংশ নিতে যাব। সেখানে মাবিয়া আক্তার সীমান্ত, ফুলপতি চাকমা, মোল্লা সাবিয়া এবং আমি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করব। প্রতিদিন অনুশীলন চলছে। পহেলা বৈশাখ আমাদের প্রাণের উৎসব। কিন্তু অনুশীলন তো করতেই হবে। উজবেকিস্তানে ভালো কিছু প্রত্যাশা করছি। তাই সবাই যখন আনন্দ করবে, তখন আমি হয়তো অনুশীলনে থাকব। এই ভেবে মন খারাপ হচ্ছে। তবে উজবেকিস্তান থেকে পদক জিতে আসতে পারলে মন ভালো হয়ে যাবে। এ কষ্ট সার্থক হবে।
ইমদাদুল হক মিলন, ব্রোঞ্জজয়ী আরচারি
গৌহাটি-শিলং এসএ গেমসের পর সেই যে ক্যাম্পে এসেছি একটুও ফুরসত পাইনি। তবে বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে পাঁচ দিন ছুটি পেয়েছি। পাঞ্জাবি কিনেছি। খুব ভালো লাগছে যে, এবার বাড়িতে সবার সঙ্গে পহেলা বৈশাখ উদযাপন করব।

Comments

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here