SHARE
ফেইছবুকে দেয়া ওয়ার্নের সেরা টি-টোয়েন্টি একাদশে আমাদের মুস্তাফিজ
ফেইছবুকে দেয়া ওয়ার্নের সেরা টি-টোয়েন্টি একাদশে আমাদের মুস্তাফিজ

ফেইসবুকে অনুসারীদের জন্য পছন্দের একাদশটি বানিয়েছেন ওয়ার্ন। কাগজে নামগুলি লিখে সেটির ছবি দিয়েছেন একটি পোস্টে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আবির্ভাবেই সাড়া জাগানো মুস্তাফিজ পরের সময়টুকুতেও ধরে রেখেছেন তার অবিশ্বাস্য সাফল্যযাত্রা। সম্প্রতি রাঙিয়ে এসেছেন আইপিএল। ক্রিকেট বিশ্বের অনেকের মতেই সীমিত ওভারের ক্রিকেটে মুস্তাফিজ এখন সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য বোলার।

মুস্তাফিজের সঙ্গে স্পেশালিস্ট পেস বোলার হিসেবে ওয়ার্ন রেখেছেন আরেক বাঁহাতি মিচেল স্টার্ককে। ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে এই স্টার্ককেই ‘সফট’ বলে সমালোচনা করেছিলেন ওয়ার্ন। সেই সমালোচনার পরই বিস্ময়করভাবে নিজেকে বদলে ফেলেন স্টার্ক। গতি-আগ্রাসন-সুইং মিলিয়ে হয়ে উঠেছেন সময়ের অন্যতম সেরা ফাস্ট বোলার।

স্টার্কের সঙ্গে নিজ দেশ অস্ট্রেলিয়ার আর একজনকেই রেখেছেন ওয়ার্ন, সম্প্রতি অবসরে যাওয়া শেন ওয়াটসন। অবশ্য ওপেনিংয়ে নয়, ওয়াটসনকে ওয়ার্ন রেখেছেন পাঁচ নম্বরে।

ওয়ার্নের একাদশে দুই ওপেনার ক্রিস গেইল ও অবসরে যাওয়া ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। রাখেননি তিনি সময়ের সেরাদের আরেকজন, নিজ দেশের ডেভিড ওয়ার্নারকে।

ম্যাককালাম থাকার পরও ওয়ার্ন রেখেছেন আরেক বিধ্বংসী উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান জস বাটলারকে। দলের কিপিং গ্লাভসও সামলাবেন তিনিই।

একাদশে অলরাউন্ডার বেশ কজন। ওয়াটসনের পাশাপাশি আছেন, আন্দ্রে রাসেল ও ডোয়াইন ব্রাভো। প্রয়োজনে হাত ঘোরানোর জন্য আছেন গেইল।

সময়ের সেরা দুই ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি ও এবি ডি ভিলিয়ার্সের নাম তো ছিল অবধারিতই। একমাত্র স্পেশালিস্ট স্পিনার সুনিল নারাইন।

ওয়ার্নের সেরা একাদশ: ক্রিস গেইল, ব্রেন্ডন ম্যাককালাম, বিরাট কোহলি, এবি ডি ভিলিয়ার্স, শেন ওয়াটসন, আন্দ্রে রাসেল, ডোয়াইন ব্রাভো, জস বাটলার, মিচেল স্টার্ক, সুনিল নারাইন, মুস্তাফিজুর রহমান।

ফেইসবুকে অনুসারীদের জন্য পছন্দের একাদশটি বানিয়েছেন ওয়ার্ন। কাগজে নামগুলি লিখে সেটির ছবি দিয়েছেন একটি পোস্টে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আবির্ভাবেই সাড়া জাগানো মুস্তাফিজ পরের সময়টুকুতেও ধরে রেখেছেন তার অবিশ্বাস্য সাফল্যযাত্রা। সম্প্রতি রাঙিয়ে এসেছেন আইপিএল। ক্রিকেট বিশ্বের অনেকের মতেই সীমিত ওভারের ক্রিকেটে মুস্তাফিজ এখন সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য বোলার।

মুস্তাফিজের সঙ্গে স্পেশালিস্ট পেস বোলার হিসেবে ওয়ার্ন রেখেছেন আরেক বাঁহাতি মিচেল স্টার্ককে। ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে এই স্টার্ককেই ‘সফট’ বলে সমালোচনা করেছিলেন ওয়ার্ন। সেই সমালোচনার পরই বিস্ময়করভাবে নিজেকে বদলে ফেলেন স্টার্ক। গতি-আগ্রাসন-সুইং মিলিয়ে হয়ে উঠেছেন সময়ের অন্যতম সেরা ফাস্ট বোলার।

স্টার্কের সঙ্গে নিজ দেশ অস্ট্রেলিয়ার আর একজনকেই রেখেছেন ওয়ার্ন, সম্প্রতি অবসরে যাওয়া শেন ওয়াটসন। অবশ্য ওপেনিংয়ে নয়, ওয়াটসনকে ওয়ার্ন রেখেছেন পাঁচ নম্বরে।

ওয়ার্নের একাদশে দুই ওপেনার ক্রিস গেইল ও অবসরে যাওয়া ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। রাখেননি তিনি সময়ের সেরাদের আরেকজন, নিজ দেশের ডেভিড ওয়ার্নারকে।

ম্যাককালাম থাকার পরও ওয়ার্ন রেখেছেন আরেক বিধ্বংসী উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান জস বাটলারকে। দলের কিপিং গ্লাভসও সামলাবেন তিনিই।

একাদশে অলরাউন্ডার বেশ কজন। ওয়াটসনের পাশাপাশি আছেন, আন্দ্রে রাসেল ও ডোয়াইন ব্রাভো। প্রয়োজনে হাত ঘোরানোর জন্য আছেন গেইল।

সময়ের সেরা দুই ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি ও এবি ডি ভিলিয়ার্সের নাম তো ছিল অবধারিতই। একমাত্র স্পেশালিস্ট স্পিনার সুনিল নারাইন।

ওয়ার্নের সেরা একাদশ: ক্রিস গেইল, ব্রেন্ডন ম্যাককালাম, বিরাট কোহলি, এবি ডি ভিলিয়ার্স, শেন ওয়াটসন, আন্দ্রে রাসেল, ডোয়াইন ব্রাভো, জস বাটলার, মিচেল স্টার্ক, সুনিল নারাইন, মুস্তাফিজুর রহমান।

Comments

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here